শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ০৪:১৯ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনামঃ
রাজশাহীতে দুর্নীতি জালিয়াতি বদলি বাণিজ্যে মাউশির ডিডি রাজশাহীতে শুটারগান ও ফেন্সিডিলসহ অস্ত্র কারবারী গ্রেপ্তার চারঘাটে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৬ প্রার্থী কাস্টমস আইন, ২০২৩ বাস্তবায়নকল্পে চাঁপাইনবাবগঞ্জে প্রশিক্ষণ কর্মশালা সরিষাবাড়ীতে নন গ্রুপ কৃষক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত চক্ষু হাসপাতালের সেবার মান বৃদ্ধিতে অত্যাধুনিক এ্যালকোন ফ্যাকো মেশিন সংযোজন নাটোর সদর থেকে ২৪ হাজার টাকা জাল নোটসহ স্বামী-স্ত্রী কে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-৫ রাজশাহীর চারঘাট উপজেলা প্রেসক্লাবে জরুরী সভা অনুষ্ঠিত সরিষাবাড়ীতে শ্রেষ্ঠ সমবায়ী নির্বাচিত হলেন সাংবাদিক এম এ রউফ নিয়ামতপুরে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে জামানত হারাচ্ছেন ৬ প্রার্থী

প্রশাসনের নাম ভাঙিয়ে ডালা বিহীন কাঁকড়া গাড়ি দিয়ে মাটি পরিবহন করে জলাশয় ভরাট..?

দেলোয়ার হোসেন সোহেল
প্রকাশিতঃ শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ০৪:১৯ পূর্বাহ্ন

দেলোয়ার হোসেন সোহেল

রাজশাহীর তানোর ও গোদাগাড়ী উপজেলার সীমান্তবর্তী রিশিকুল ইউনিয়নের (ইউপি) পলাশী গ্রামে অবৈধ পুকুর খনন এবং পুকুরের মাটি পরিবহন করে সরকারি পাঁকা রাস্তা নষ্ট করে জলাশয় ভরাট করা হচ্ছে। এ ঘটনায় গ্রামবাসির মাঝে চরম অসন্তোসের সৃষ্টি হয়েছে, বিরাজ করছে উত্তেজনা। গ্রামবাসির অভিযোগ প্রশাসনের নাম ভাঙিয়ে এসব অবৈধ মাটি বাণিজ্যে করা হচ্ছে।

এদিকে ভেকু মেশিন (মাটিকাটা যন্ত্র) ও অবৈধ ট্রাক্টরের বিকট শব্দে জনজীবন অতিষ্ঠ। অন্যদিকে ট্রাক্টরে মাটি বহনের সময় কাঁদা মাটি রাস্তায় পড়ে রাস্তা নষ্ট ও ধুলাবালিতে পরিবেশ দুষণে বাসা বাড়িতে থাকায় কঠিন হয়ে পড়েছে। রোজার দিনে তাদের এমন অবৈধ মাটি বানিজ্যে এলাকার মানুষ বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছে। পলাশী গ্রামের প্রভাবশালী জুয়েল ও তারেক খাঁন প্রশাসনের অনুমতি ব্যতিত গ্রামবাসির বাধা উপেক্ষা করে জোরপুর্বক পুকুরের কাঁদামাটি পরিবহন করে সদ্য নির্মিত পাঁকা রাস্তা নষ্ট ও পরিবেশ দুষণ করছেন। হালকা বৃষ্টি হলেই এই কাঁদা মাখা রাস্তায় ঘটবে বড় ধরনের সড়ক দুর্ঘটনা বিশেষ করে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনা ঘটবে ১০০% এমনতো অবস্থায় গ্রামবাসির মাঝে চরম অসন্তোষের সৃষ্টি হয়েছে।
জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষণা অনুযায়ী জমির শ্রেণী পরিবর্তন করে পুকুর খনন ও মাটি পরিবহন করে পাঁকা রাস্তা নস্ট করা নিষিদ্ধ  রয়েছে। কোথাও কোনো পুরাতন পুকুর খনন করতে চাইলে  উপজেলা প্রশাসনের কাছে আবেদন করে তারপর অনুমোদন নিতে হয়। সেখানেও বলা থাকে পুকুর খননের মাটি যেনো কোনো পাঁকা বা কাঁচা রাস্তায় না উঠে। অথচ এসব নিয়মনীতি লঙ্ঘন ও প্রশাসনের নাম ভাঙিয়ে অবৈধ মাটি বানিজ্যে করছে ভেকু দালাল তানোর উপজেলার সরনজাই ইউপির সরকার পাড়া এলাকার আশরাফুল ইসলাম। কিন্ত্ত বিষয়টি যেনো  দেখার কেউ নাই। এবিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বলেন, অনুমতি ব্যতিত পুকুর পুনঃখননের কোনো সুযোগ নাই জলাশয় ভরাটের তো প্রশ্নই আসে না। তিনি আরো বলেন,এবিষয়ে বিস্তারিত খোঁজ খবর নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এবিষয়ে জানতে চাইলে ভেঁকু দালাল আশরাফুল ইসলাম বলেন, নিজের একটি পুকুর খনন ও একটি পুকুর ভরাট করা হচ্ছে এখানে অনুমতি নিতে হবে কেন ? তিনি আরো বলেন, মাটি পরিবহন করলে তো রাস্তা নষ্ট হবে, তাই বলে কি মানুষ পুকুর সংস্কার করবে না। তিনি বলেন, রাস্তা নস্ট হলে সরকার ঠিক করবে এখানে সাংবাদিক বা গ্রামের মানুষের সমস্যা কি। তিনি আরো বলেন, মাটি কাটা ও মাটি পরিবহন করার জন্য মৌখিকভাবে উপজেলা প্রশাসনের কাছ থেকে অনুমতি নেওয়া আছে।


আরো পড়ুন