মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ০৪:১৪ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনামঃ
নিয়ামতপুরে নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যানকে সাবরেজিষ্ট্রি অফিসের সংবর্ধনা প্রদান চাঁপাইনবাবগঞ্জে ১৫৬ টি বিদেশি মোবাইল উদ্ধার, আটক-১ রাসিক মেয়রের সাথে নবনির্বাচিত নেতৃবৃন্দের সৌজন্য সাক্ষাৎ ২৩তম চাইল্ড পার্লামেন্ট অধিবেশন অনুষ্ঠিত দরজা ভেঙে রুয়েট ছাত্রের ‘ঝুলন্ত’ লাশ উদ্ধার গোদাগাড়ীতে ২টি ওয়ান শুটারগান ও ১৪২ বোতল ফেনসিডিলসহ গ্রেপ্তার ১ সর্বোচ্চ সেবার মান নিশ্চিতে কেশরহাটে হক রাইডার্স’র উদ্বোধন চাঁপাইনবাবগঞ্জে ‘ভিসতা’র শোরুম উদ্বোধন করলেন চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় মুক্তিযোদ্ধা আবুল কাশেমের দাফন সম্পন্ন নিয়ামতপুরে গাঁজাসহ গ্রেপ্তার এক

নিউইয়র্কে ইসলামিক পণ্য বিক্রেতা বাংলাদেশিদের উচ্ছেদ করল পুলিশ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশিতঃ মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ০৪:১৪ অপরাহ্ন

পবিত্র রমজান মাস শুরু হওয়ার ঠিক আগে ইসলামিক পণ্য বিক্রেতা কয়েকজন বাংলাদেশি হকারকে উচ্ছেদ করেছে নিউইয়র্ক সিটি পুলিশ। এসব বাংলাদেশি সিটির বোরো অব কুইন্সে নিজেদের পণ্য বিক্রি করতেন। কিন্তু সেখানে হঠাৎ করে পুলিশ এসে তাদের ওঠে যাওয়ার নির্দেশ দেয়।

দ্য সিটি নামক একটি স্থানীয় সংবাদমাধ্যমে গত শুক্রবার (১৫ মার্চ) এই তথ্য জানানো হয়। ওই এলাকাটিতে অন্তত ১২ জন বাংলাদেশি জায়নামাজ, টুপিসহ অন্যান্য পণ্য বিক্রি করতেন।
গত ৮ মার্চ প্রথমে পুলিশ এসে তাদের ওঠে যাওয়ার নির্দেশ দেয়। লাইসেন্স ছাড়া পণ্য বিক্রি করায় তাদের জরিমানা করা হয়।

একজন বাংলাদেশি হকার জানিয়েছেন, পুলিশ তাকে ২৫০ ডলার জরিমানা করে। এরপর থেকে ওই এলাকায় আবারও ফিরে যেতে ভয় পাচ্ছেন তারা।

এতে করে অনেকের আয়ের পুরো উৎসই বন্ধ হয়ে গেছে। নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য এবং বাড়িভাড়া কিভাবে দেবেন সে বিষয়টি নিয়ে এখন তারা উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছেন।

মোহাম্মদ নাসির উদ্দিন নামের এক বাংলাদেশি বলেছেন, “আমার বড় ভয় হলো লাইসেন্স ছাড়া কাজ করলে আমি গ্রেপ্তার হতে পারি।”

নাসিরের ওপর নির্ভরশীর তার পরিবারের পাঁচ সদস্য। তিনি কাজ না করতে পারায় পরিবারের বাকি সদস্যরাও সমস্যায় পড়েছেন।

“আমি ভীত কারণ হয়ত পরিবারের সদস্যদের আমি আর সাহায্য করতে পারব না। এটি আমার সবচেয়ে বড় ভয়।” যোগ করেন নাসির।

নিউইয়র্ক সিটিতে দোকান ছাড়া কোথাও ব্যবসা করতে হলে লাইসেন্সের প্রয়োজন হয়। বর্তমান ১১ হাজার লাইসেন্সের আবেদন আটকে আছে। ফলে অনেকেই বৈধভাবে ব্যবসা করতে চাইলেও সেটি পারছেন না। এ কারণে তারা লাইসেন্স প্রদানে গতি আনার দাবি জানিয়েছেন।

অন্য আরেক বাংলাদেশি হকার জানিয়েছেন, রমজান মাস আসলে ইসলামিক পণ্যের বিক্রি বাড়ে। কিন্তু এখন তাদের উচ্ছেদ করায় সব বন্ধ। অপরদিকে খালি পড়ে আছে সেই রাস্তাটি।

সূত্র: দ্য সিটি


আরো পড়ুন