শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ০৭:৩৮ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনামঃ
মেয়ের বিয়ের ‌‘যৌতুক’ হিসেবে বিসিএস প্রশ্ন দেন পিএসসির সাবেক মেম্বার মোহনপুরে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বকুলের অভিষেক আন্দোলনকারীকে ‘শিবির অ্যাখ্যা’ দিয়ে মারধরের অভিযোগ রাবি ছাত্রলীগ সভাপতির বিরুদ্ধে রাজশাহীতে টহল গাড়ি থেকে ছিটকে পুলিশ কনস্টেবলের মৃত্যু পুঠিয়ায় শত বছরের ঐতিহ্যবাহী রথযাত্রার উদ্বোধন কোটা বিরোধী সাংস্কৃতিক আন্দোলনে উত্তাল রাবি , আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ক্লাস-পরীক্ষা বর্জনের ডাক । রাবি প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে জয়পুরহাট জেলা সমিতির বৃক্ষরোপন ঐতিহ্যের ৭০ বছর পেরিয়ে ৭১-এ পদার্পণ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্যাশলেস সোসাইটি বাস্তবায়ন আলোচনা মোহনপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় আহতকে মৃত ভেবে তুলে নিয়ে পালানোর সময় আটক ২

কোটা বিরোধী সাংস্কৃতিক আন্দোলনে উত্তাল রাবি , আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ক্লাস-পরীক্ষা বর্জনের ডাক ।

শেখ আল আসিফ
প্রকাশিতঃ শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ০৭:৩৮ পূর্বাহ্ন

রবিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্যারিস রোডে আন্দোলনে শিক্ষার্থীরা জাগরণী গান, কবিতা আবৃত্তি, পথ নাটকের মাধ্যে এ প্রতিবাদ করেন।

কোটা সংস্কার আন্দোলনের সমন্বয় আমানুল্লাহ খান বলেন, ” কোটা সংস্কার আন্দোলন চলছে, চলবে। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলবে। আগামীকাল থেকে সকল ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করছি। ক্যাম্পাসের বাসের চাকা ঘুরবে না।”

শিক্ষার্থীদের দাবি, ২০১৮ সালে ঘোষিত সরকারি চাকরিতে কোটা পদ্ধতি বাতিল ও মেধাভিত্তিক নিয়োগের পরিপত্র বহাল রাখা, অযৌক্তিক ও বৈষম্যমূলক কোটা বাদ দিতে হবে এবং কোটাকে ন্যূনতম পর্যায়ে নিয়ে আসতে হবে৷ সে ক্ষেত্রে সংবিধান অনুযায়ী কেবল অনগ্রসর জনগোষ্ঠীর কথা বিবেচনা করা যেতে পারে, সরকারি চাকরির নিয়োগ পরীক্ষায় কোটা সুবিধা একাধিকবার ব্যবহার করা যাবে না এবং কোটায় যোগ্য প্রার্থী না পাওয়া গেলে শূন্য পদগুলোতে মেধা অনুযায়ী নিয়োগ দিতে হবে৷

আন্দোলন বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন হলগুলো থেকে শত শত শিক্ষার্থী প্যারিস রোডে জমায়েত হচ্ছে।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ৪ দফা দাবিগুলো হলো –

১. ২০১৮ সালে ঘোষিত সরকারি চাকরিতে কোটা পদ্ধতি বাতিল ও মেধাভিত্তিক নিয়োগের পরিপত্র বহাল রাখতে হবে। পরীক্ষায় কোটা সুবিধা একাধিকবার ব্যবহার করা যাবে না এবং কোটায় যোগ্য প্রার্থী না পাওয়া গেলে শূন্য পদগুলোয় মেধা অনুযায়ী নিয়োগ দিতে হবে।
২. যাদের কোটা আছে জীবনদ্দশায় একবারই কোটা ব্যবহার করতে পারবে।
৩. প্রতি ১০ বছর পর পর জনশুমারির সঙ্গে অর্থনৈতিক সমীক্ষা করতে হবে যাতে আমরা বুঝতে পারি কোটার প্রয়োজনীয়তা কেমন এবং কোটার মূল্যায়ন করা।
৪. দুর্নীতিমুক্ত, নিরপেক্ষ ও মেধাভিত্তিক আমলাতন্ত্র নিশ্চিত করতে কার্যকর ব্যবস্থা নিতে হবে।


আরো পড়ুন