মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ০৩:৩৮ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনামঃ
নিয়ামতপুরে নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যানকে সাবরেজিষ্ট্রি অফিসের সংবর্ধনা প্রদান চাঁপাইনবাবগঞ্জে ১৫৬ টি বিদেশি মোবাইল উদ্ধার, আটক-১ রাসিক মেয়রের সাথে নবনির্বাচিত নেতৃবৃন্দের সৌজন্য সাক্ষাৎ ২৩তম চাইল্ড পার্লামেন্ট অধিবেশন অনুষ্ঠিত দরজা ভেঙে রুয়েট ছাত্রের ‘ঝুলন্ত’ লাশ উদ্ধার গোদাগাড়ীতে ২টি ওয়ান শুটারগান ও ১৪২ বোতল ফেনসিডিলসহ গ্রেপ্তার ১ সর্বোচ্চ সেবার মান নিশ্চিতে কেশরহাটে হক রাইডার্স’র উদ্বোধন চাঁপাইনবাবগঞ্জে ‘ভিসতা’র শোরুম উদ্বোধন করলেন চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় মুক্তিযোদ্ধা আবুল কাশেমের দাফন সম্পন্ন নিয়ামতপুরে গাঁজাসহ গ্রেপ্তার এক

সরিষাবাড়ীতে ইউপি চেয়ারম্যান ও পিআইওসহ সাতজনের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

মাজহারুল ইসলাম শাওন
প্রকাশিতঃ মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ০৩:৩৮ অপরাহ্ন
ইউপি চেয়ারম্যান

সরিষাবাড়ী (জামালপুর) প্রতিনিধি

জামালপুরের সরিষাবাড়ী উপজেলার ৬নং ভাটারা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বোরহান উদ্দিন বাদল, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) হুমায়ুন কবীর, সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা ও চারজন ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

সরকারি প্রকল্পের ৬৫ লাখ ৮২ হাজার ২৩ টাকা আত্মসাত করায় জামালপুর দুর্নীতি দমন কমিশন সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপসহকারী পরিচালক মো. জিহাদুল ইসলাম বাদী হয়ে এ মামলা করেন।

বৃহস্পতিবার (২ মে) সিনিয়র স্পেশাল জজ আদালতের পিপি এডভোকেট লুৎফর রহমান রতন গণমাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

মামলায় আসামীরা হলেন ৬নং ভাটারা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বোরহান উদ্দিন বাদল, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (সম্প্রতি মদন উপজেলায় বদলিকৃত) হুমায়ুন কবীর, সহকারী উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো. মনিরুজ্জামান, একই ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য ময়না মিয়া, রবিউল ইসলাম, আতিকুর রহমান দুলাল ও জাহানারা বেগম।

মামলা সূত্র জানায়, ২০২০ সালের ২ জানুয়ারি থেকে ২০২১ সালের ৩১ আগস্ট পর্যন্ত বিভিন্নসময়ে‌ ভাটারা ইউনিয়ন পরিষদের জন্য দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের বরাদ্দকৃত সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনী কর্মসূচির আওতায় অতিদরিদ্রদের কর্মসংস্থান (ইজিপিপি) ও কাজের বিনিময়ে টাকা (কাবিটা) প্রকল্পের কোনো কাজ না করে কাগজেকলমে বাস্তবায়ন দেখানো হয়। আসামীরা পরস্পর যোগসাজশে ১৫টি প্রকল্পের ৬৫ লাখ ৮২ হাজার ২৩ টাকা আত্মসাত করেন।

জামালপুর সিনিয়র স্পেশাল জজ আদালতের পিপি ও দুদকের আইনজীবী এডভোকেট লুৎফর রহমান রতন জানান, দুদকের অনুসন্ধানের ভিত্তিতে ইউপি চেয়ারম্যানসহ সাতজনের বিরুদ্ধে দণ্ডবিধির ৪০৯/৪২০/৪৬৮/৪৭৭(ক)/১০৯ ও ১৯৪৭ সালের দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারায় অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় দুদক মামলা দায়ের করে। রবিবার (২৮ এপ্রিল) দুদকের উপরিচালক মলয় কুমার সাহা মামলাটি আমলে নিয়ে সিনিয়র স্পেশাল জজ আদালতে প্রেরণ করেন।

এব্যাপারে মন্তব্য জানতে ইউপি চেয়ারম্যান বোরহান উদ্দিন বাদল ও পিআইও হুমায়ুন কবীরকে একাধিকবার মুঠোফোনে কল করা হলেও তারা রিসিভ করেননি।

সহকারী উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো. মনিরুজ্জামান জানান, তিনি ভাটারা ইউনিয়নের ট্যাগ অফিসার (প্রকল্প তদারকি কর্মকর্তা)। ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ইজিপিপি প্রকল্প নিয়ে অনিয়মের অভিযোগ ছিল। আমি অনিয়মের সঙ্গে যুক্ত নই, কিন্তু ট্যাগ অফিসার হওয়ার কারণে আমাকেও আসামী করা রয়েছে।

 

 


আরো পড়ুন